Movies

Oxygène (2021) | Movies Review

An Oman Wax Api in a cryogenic room and does not remember how she got there, she tells the way out of the air.

Oxygène (2021)
🧯কেন দেখবেনঃ Buried এর মতো শ্বাসরুদ্ধকর থ্রিলার সাইফাইর মোড়কে দেখতে চাইলে
🧯কোথায় দেখবেনঃ নেটফ্লিক্সে
মূল চরিত্রে মেলানি লরেন্ট (Inglorious bastards, Now you see me)
ক্রায়োজেনিক চেম্বার বা পডের ভেতরে বন্দী মেলানি, সারা শরীরে বিভিন্ন তার লাগানো, যেন মেডিক্যাল কোন ডায়াগনোসিস চলছে। কিন্তু কিছু একটা হয়েছে, তার স্মৃতিশক্তি কাজ করছে না, মনে করতে পারছে না কেন সে এখানে বন্দী। কেন কেউ তাকে উদ্ধার করছে না। কেন অক্সিজেন কমে আসছে, আর একটা OS ক্রমাগত তাকে পরিস্থিতি বোঝানোর চেষ্টা করছে।
পরিচালক ২০১৯ এ Crawl এর মতো চমৎকার হরর থ্রিলার দিয়ে চমকে দিয়েছিলেন। এর আগেও the hills have eyes, Mirrors এর মতো ফিল্ম বানিয়েছেন। এই প্রথম সাইফাই ঘরানায় হাত দিলেন।
ভালো সাইফাই থ্রিলারের জন্য জরুরি- প্রোডাকশান ভ্যালু, সাউন্ড ডিজাইন, আবহ সঙ্গীত সবই এখানে জবরদস্ত। স্ক্রিনপ্লেও বেশ। না হলে ২য় অ্যাক্টে আগে অনেক সাইফাই ও থ্রিলার দেখে থাকলে ফর্মুলা ভেবে কিছুটা আন্দাজ করা যায় কী হতে চলেছে। আন্দাজ করা গেলেও ৩য় অ্যাক্টে টুইস্টগুলোকে এমনভাবে ন্যারেটিভে ব্লেন্ড করা হয়েছে, যে মুগ্ধতা চলে আসে।
২য় অ্যাক্টে কিছু কথোপকথন ও লেখনি একটু রিপিটেটিভ মনে হতে পারে, যা এঙ্গেইজমেন্ট কমিয়ে দিতে পারে, Buried এ যেটা ছিলো না। তারপরও মেলানি লরেন্টের সৌন্দর্য ও সুঅভিনয়ের কারণে আরাম লাগে। কেন্দ্রীয় চরিত্রটির প্রতি মায়া না জন্মালে এধরণের সিনেমা গোড়াতেই ব্যর্থ।
এছাড়াও বর্তমান প্রেক্ষাপটের কথা চিন্তা করলে Oxygen এর মুক্তি একেবারে মোক্ষম। Buried এর তুলনায় আরও গভীর লেভেলে চলে যাওয়া হয়েছে এখানে। তাই রেশ থেকে যায়।
রটেন টোম্যাটোজেঃ ৯৪%, ৭৮% ইতিবাচক (সমালোচক, দর্শক)
মেটাক্রিটিক স্কোরঃ ৬৬
আমার গ্রেডিংঃ A-
#মুভি #সিনেমা #রিভিউ #সাইফাই #ফরাসি #অভীজিবরান #ইউরোপিয়ান #নেটফ্লিক্স

Link

সোর্স: দারুণ সব সিনেমার খবর আর লিংক

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
DMCA.com Protection Status